Advertisements
জাতীয়

‘আপনি দেনমোহর পরিশোধ করেছেন বলে কি আমি আপনার গোলাম?’

ঘর ভাঙার জন্য তানজিন তিশার দিকে অভিযোগের আঙুল তুলে হইচই ফেলে দিয়েছেন সঙ্গীতশিল্পী হাবিবের সাবেক স্ত্রী রেহান। শনিবার দুপুর থেকে মিডিয়াপাড়ায় টক অব দ্য টপিকসে উঠে এসেছে এই ইস্যু। তবে রেহানের এসব অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন তিশা।

আর তাদের এই অভিযোগ-পাল্টা অভিযোগ নিয়ে শনিবার রাতে নিজের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে একটি স্ট্যাটাস দেন হাবিব। যেখানে তিনি তুলে ধরেন বেশ কিছু প্রসঙ্গ। এদিকে হাবিবের স্ট্যাটাসের অনেকটা প্রতিউত্তর আকারে ফেসবুকে জবাব দিয়েছেন রেহান। সেখানে তিনি লিখেছেন-

‘বাহ! বেশ লিখেছেন হাবিব ওয়াহিদ, আসলেই বিচ্ছেদের আগে কেন বলিনি। কারণ, আমি জানতাম শ্রদ্ধা কী জিনিস আপনি একটু হলেও বুঝেন! কিন্তু সেটা তো আরও প্রমাণ করলেন বিচ্ছেদের পরে। আপনি যেই পার্সোনাল পার্সোনাল করেন না তাকে দিয়ে। কেন ভাই আপনারা আমাকে অপমান করার কে?

ছেলেকে নিয়ে আমি তো ভালোই ছিলাম আর আছি। বলেন, আপনার গার্লফ্রেন্ডের সমস্যা কী আমাকে নিয়ে? আর এখন আবার স্ট্যাটাস দেন? আপনি আমার দেনমোহর পরিশোধ করেছেন ভালো, তাই বলে কি আমি আপনার গোলাম অথবা আপনাদের গোলাম? যে যা ইচ্ছে বলবেন? আপনার প্রিয়তমাকে আগে তার চিন্তা আর মুখের ভাষা ঠিক করতে বলেন। আর আমাকে টাকা দিয়ে অপমান করা কী আজও বন্ধ করতে পারলেন নাকি আদৌ পারবেন?

শুনুন, স্ট্যাটাস দিলেই হয় না। আর আমারও ইচ্ছে নেই আপনাদের নিয়ে কাদা মারার খেলা নিয়ে। সেলিব্রেটি হইছেন, কোন রাজা হয়েছেন? আগে নিজেদের ভাষা ও বিবেক ঠিক করলে ভালো হয়। আমি ভাই পাগলও না ছাগলও না, ওকে। এমন হলে পাঁচ বছর সংসার কেমনে করেছিলাম? সব কিছুর একটা কারণ থাকে। ঠিক তেমনি আমার অভিযোগও আছে। প্রেম করছেন ভালো কথা। কিন্তু অন্যদের শান্তি নষ্ট করেন কেন? আপনার ছেলেকে মানুষ করছি আমি। ডজনখানেক প্রেমও করছি না। বুঝলেন, এত কিছুর মধ্যেও বাচ্চাকে আদর-মমতা দিয়ে আগলে রেখেছি।

আর কিছু বলব না। আগে আপনারা আমাকে মানসিক নির্যাতন বন্ধ করেন। তারপর দেখবেন সব ঝামেলাও শেষ হবে। আর হ্যাঁ, আপনার স্ট্যাটাস মানে সব সত্য, তাও কিন্তু ভুল! মিস্টার হাবিব ওয়াহিদ! ভালো থাকুন আর আমাকে তৃতীয় ব্যক্তি দিয়ে নির্যাতন বন্ধ করুন।

(ওহ! এবং হ্যাঁ আপনার জন্য একটা ভালো উপদেশ। মিথ্যা বলা ছেড়ে দেন। মিথ্যা বলে আর কত পার পাবেন? আপনি কতবড় মিথ্যুক আমি ভালো করেই জানি)’

Advertisements