Advertisements
খেলা-ধুলা

আইপিএলে ফিরে এল সাসপেন্ড চেন্নাই ও রাজস্থান

একটি দল আইপিএলের প্রথম আসরেই রূপকথার জন্ম দিয়ে হয়ে গিয়েছিল চ্যাম্পিয়ন। অন্য আরেকটি দল আটবার আইপিএল খেলে ৬ বারই উঠেছিল ফাইনালে। সেই রাজস্থান রয়্যালস আর চেন্নাই সুপার কিংসকে (সিএসকে) দেখা যায়নি গত দুটি আসরে। স্পট ফিক্সিং কেলেঙ্কারি ভারতের ক্রিকেটকেই টালমাটাল করে দিয়েছিল। যার মূল অপরাধ ছিল এই দুই দলের কিছু খেলোয়াড় আর কর্মকর্তাদের। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের এত ওলট-পালটের অন্যতম কারণ ছিল এই কেলেঙ্কারি।

অবশেষে এই দুটি দলের দুই বছরের নিষেধাজ্ঞা শেষ হলো গতকাল। আজ থেকে দুটি দলই আবার প্রচার প্রচারণা শুরু করেছে। যদিও এই দুই দলের খেলোয়াড়েরা অন্য দলে ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়েছেন। তবে আইপিএল বলতেই ধোনির হলুদ জার্সি যেমন চোখে ভেসে ওঠে অনেকের, সেটি আবারও ফিরিয়ে আনতে চায় সিএসকে।

চেন্নাই ফ্র্যাঞ্চাইজির অন্যতম পরিচালক কে জর্জ জন বলেছেন, ‘এটা আমাদের জন্য নতুন শুরু। শুক্রবার থেকে আমরা সামাজিক মাধ্যমে দুটি কর্মসূচি চালু করছি এই প্রত্যাবর্তনকে সামনে রেখে। সেরা মুহূর্তগুলো শিরোনামে আমরা আমাদের শিরোপা জয়, অশ্বিন-গেইল কাণ্ডসহ আরও কিছু আলোচিত মুহূর্ত তুলে আনব। এরপর ভক্তদের অনুরোধ করব সিএসকে তারকা বা হলুদ জার্সি পরা সেলফি আমাদের পাঠাতে।’

ধোনির সঙ্গে অবশ্য সিএসকে এখনো যোগাযোগ করেনি বলে জানিয়েছেন জন। পুনের সঙ্গে ধোনির চুক্তির মেয়াদ আছে এ বছর পর্যন্ত। তা শেষ হলে ধোনিকে প্রস্তাব দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন। শুধু ধোনি নয়, স্টিফেন ফ্লেমিংসহ পুরো কোচিং দলকে ফিরিয়ে আনার ইচ্ছা আছে চেন্নাইয়ের।

গত দুই আসরে না থাকলেও সিএসকের জনপ্রিয়তা এতটুকু কমেনি বলে দাবি জনের। অনেক স্পনসর এরই মধ্যে তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ করছে বলে জানিয়েছেন তিনি। সমর্থকদের ভালোবাসাতে নাকি তাঁরা আপ্লুত। নতুন এই শুরুতে অতীতের কলঙ্কের কালি না লাগার ব্যাপারে তাঁরা সচেষ্ট হবেন নিশ্চয়ই।

রাজস্থান এখনো ধীরে চলো নীতিতে এগোচ্ছে। আগামী আসর থেকে এই দুটি দলের খেলতে আর কোনো বাধা নেই। সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া।

Advertisements





সর্বশেষ খবর