খেলা-ধুলা

আইনী জটিলতার মুখে বিপুল সম্পদের হিসাব প্রকাশ করলেন রোনালদো!

yতীব্র আলোচনা-সমালোচনা এবং আইনী জটিলতার মুখে অবশেষে নিজের আয়ের আর্থিক রেকর্ড প্রকাশ করেছেন পর্তুগাল সুপারস্টার ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। যেখানে রিয়াল মাদ্রিদের এই সুপারস্টার ২০১৫ সালে আয় দেখিয়েছেন ২২৫ মিলিয়ন ইউরোরও বেশী।
বর্তমানে তিনি আয়কর-ফাকি সংক্রান্ত জটিলতার মধ্যে রয়েছেন।

গণমাধ্যমের একটি আন্তর্জাতিক কনসোর্টিয়াম দাবি করেছে ১৮ মিলিয়ন নথি গোপন করে তিনি ব্রিটিশ ভার্জিন আইসল্যান্ড থেকে ইমেজ স্বত্ব থেকে আয়কৃত অন্তত ১৫০ মিলিয়ন ইউরোর তথ্য গোপন করেছেন।

কিন্তু ৩১ বছর বয়সী এই পর্তুগাল তারকা ২০১৫ সালে তার আয়ের বিস্তারিত তথ্য প্রকাশ করেছেন যেটি তিনি স্প্যানিশ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে অনুমোদন করিয়ে নিয়েছেন। কিন্তু ‘মডেল ৭২০’ নামে পরিচিত প্রতিষ্ঠান তাদের কার্যপ্রণালীতে গত মার্চ মাসে আয়কর প্রদান সংক্রান্ত যে তথ্য দেখিয়েছে সেখানে রোনালদোর আয় দেখানো হয়েছে তিনি স্পেনের বাইরে থেকে আয় করেছেন ২০৩. ৭ মিলিয়ন ইউরো এবং ভেতর থেকে আয় করেছেন ২৩.৫ মিলিয়ন ইউরো।

প্রকাশ করা নথিতে নিশ্চিত করা হয়েছে যে স্পেনের আয়কর বিভাগ ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর আয় এবং সম্পদ সম্পর্কে পুরোপুরি অবগত আছে। রোনালদোর এই সম্পদ ব্যবস্থাপনায় নিয়োজিত প্রতিষ্ঠান গেস্টিফুট এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানিয়েছে যে এখন থেকে এই খেলোয়াড় এ বিষয়ে আর কোন বিবৃতি দিবেননা।

বৃহস্পতিবারের আগে রোনালদো বলেছেন যে তিনি অনৈতিক কিছু করেননি। যার প্রমান তিনি উপস্থাপন করছেন। বুধবার বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের বিপক্ষে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ম্যাচে অংশগ্রহণ শেষে পর্তুগিজ টিভি স্টেশন আরটিপিকে নিজের কর প্রদান সংক্রান্ত এক প্রশ্নের জবাবে রোনালদো বলেন, “আপনি কি মনে করছেন আমি বেশ শংকিত? তাদের নিয়ে ভয় পাবার কিছুই নেই। ”

এদিন রোনালদোর ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদের পক্ষ থেকেও তাদের খেলোয়াড়ের পক্ষে একটি বিবৃতি প্রকাশ করে। যেখানে বলা হয়েছে তাদের তারকা খেলোয়াড় ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর মত ব্যক্তিদের প্রতি যেন সব ধরনের সম্মানবোধ দেখানো হয়।

ভিডিওঃ সাপকে চুমু দিতে গিয়ে জিব্বা ও ঠোঁট হারালো যুবতি!! দেখুন ভয়ঙ্কর সেই ঘটনাটি (ভিডিও)

Add Comment

Click here to post a comment