আন্তর্জাতিক

অবাক! ক্লিনটনকে তিনবার প্রত্যাখান হিলারির

hillary-bill-clinton1এখন পাতা ঝরার মরসুম মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। আর ঝরা পাতার খসখস শব্দে নীরবে মিশছে ভোটের রং। মার্কিন প্রেসিডেন্টের পদপ্রার্থী হিসেবে কে বসবেন তা বেছে নেবেন মার্কিন নাগরিকরা।
রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের মুখোমুখি যুদ্ধের অপেক্ষায় গোটা বিশ্ব। হিলারির প্রার্থী হওয়া নিয়ে বড় অনিশ্চয়তা কোনও দিনই ছিল না। অর্থাৎ দলের ভেতরে তাকে তেমন বিরোধিতার মুখোমুখি হতে হয়নি।
এক নজরে দেখে নিন হিলারি ক্লিনটনের কিছু তথ্য যা আপনার হয়তো অজানাই।
১৯৯৭ সালে হিলারি ক্লিনটন ‘গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড’ জিতেছিলেন। নিউ ইয়র্ক টাইমস থেকে প্রকাশিত, ‘ইট টেকস আ ভিলেজ’ বইটি লিখেছিলেন। এই বইটির অডিও রেকর্ডিংও করা হয়েছিল। এবং ‘সেরা শব্দ কথ্য অ্যালবাম’ বিভাগের পুরস্কারটি জিতে নিয়েছিলেন তিনি।
সেটা ১৯৭৩ সাল। হিলারির বয়স তখন ২৬ বছর। নাবিকের চাকরি পেতে পরীক্ষা দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু তার দৃষ্টিশক্তি খুব কম থাকার দরুণ মনোনীত হননি।
আজ তিনি ডেমোক্র্যাট প্রার্থী। কিন্তু ১৯৬৮ সালের আগে তিনি রিপাবলিকান পার্টিতে ছিলেন। এমনকী, ১৯৬৪ সালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সময় তিনি রিপাবলিকান প্রার্থী ব্যারি গোল্ডওয়াটারের হয়ে প্রচারও করেছিলেন।
তিন-তিন বার বিল ক্লিনটনের বিয়ের প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিলেন হিলারি। তার পছন্দমতো একটি বাড়ি কিনে ক্লিনটন তাকে প্রস্তাব দিলে, হিলারি রাজি হন।
হিলারি ক্লিনটন ১৯৯৬ সাল থেকে আর কোনও ধরনের গাড়ি চালান না। এমনকী, অনভ্যাসের কারণে গাড়ি চালানো তিনি ভুলতে বসেছেন।
কিশোরী হিলারির রাজনীতিতে কোনও আগ্রহ ছিল না। তার স্বপ্ন ছিল একজন বেসবল খেলোয়াড় হওয়ার।তিনি ইউনিভার্সিটি অব আর্কানসাস ল স্কুলে শিক্ষকতার চাকরি করেছেন।হিলারি আইনজীবী হিসেবেও কাজ করেছেন।

 

Add Comment

Click here to post a comment



সর্বশেষ খবর